শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে যাবেন এই তরুণ পাকিস্তানি?

শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে যাবেন এই তরুণ পাকিস্তানি?

দ্রুত গতির বোলিংয়ে শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে যেতে চান পাকিস্তানের উদীয়মান পেসার আকিফ জাভেদ।

আসছে সপ্তাহেই দক্ষিণ আফ্রিকায় শুরু হচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ। যেটিকে ভবিষ্যতের ক্রিকেট তারকাদের টুর্নামেন্ট হিসেবেই দেখা হয়ে থাকে। বাংলাদেশের মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান থেকে শুরু করে ভারতের বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, ইংল্যান্ডের এওইন মরগান, জো রুট, পাকিস্তানের শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ, শ্রীলঙ্কার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, থিসারা পেরেরা, দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম, আমলা ডিন এলগার, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল, ডোয়াইন ব্রাভো, নিউজিল্যান্ডের কেইন উইলিয়ামসন, রস টেলর—সবাই যুবাদের এই বিশ্বকাপ খেলেই উঠে এসেছেন। ১৭ জানুয়ারি শুরু হতে যাওয়া এবারের টুর্নামেন্ট না জানি ভবিষ্যতের কোন তারকাকে সামনে নিয়ে আসে!

বড় একটা আশা নিয়েই এবারের টুর্নামেন্ট খেলতে যাচ্ছেন আকিফ জাভেদ। দলকে বিশ্বকাপ জেতাবেন, সেই আশা তো আছেই, পাকিস্তানের উদীয়মান পেসারের মনের মধ্যে লুকিয়ে আছে আরেকটি বাসনা - গতিতে শোয়েব আখতারকে ছুঁয়ে ফেলবেন কিংবা ছাড়িয়ে যাবেন! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে গতিতে এক শ মাইলের গণ্ডি পেরোনো প্রথম বোলার শোয়েব আখতার। ২০০৩ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিউল্যান্ডসে শোয়েবের এক ডেলিভারির গতি ছিল ঘণ্টায় ১৬১.৩ কিলোমিটার। এখনো এটাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ গতির ডেলিভারি হয়ে আছে। ১৯ বছর বয়সী আকিফ জাভেদের চাওয়া এই বিশ্বকাপেই শোয়েবের মতো দ্রুতগতিতে বল করা।

নিজের এই সুপ্ত আশার কথা তিনি জানিয়েছেন এক সাক্ষাৎকারে, ‘শোয়েব আখতারের মতো দ্রুতগতির বোলার হতে চাই আমি। সর্বোচ্চ ঘণ্টায় ১৪৫ কিলোমিটার গতিতে বল করেছি আমি। কিন্তু আমার লক্ষ্য, ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির বলটি করার।’

শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে যেতে চাইলেও তাঁর পছন্দের বোলার কিন্তু পাকিস্তানের মোহাম্মদ আমির। বিশেষ করে আমির যেভাবে বল সুইং করান, তার ভক্ত জাভেদ। তাঁকে অনুকরণ করার চেষ্টাও করেন জাভেদ। তবে পাকিস্তানের ক্রিকেট মহলে শোয়েবের সঙ্গে তাঁর তুলনাটা আসছেই। কারণ পাকিস্তানের ন্যাশনাল ক্রিকেট একাডেমিতে ঘণ্টায় ১৪৬ কিলোমিটার গতিতেও বল করেছেন জাভেদ। এরপর একাডেমির কোচদের সঙ্গে অনেক কাজ করেছেন। নিজেকে কীভাবে আরও কার্যকর করে তোলা যায় তা নিয়ে করেছেন কঠোর পরিশ্রমও। আসন্ন যুব বিশ্বকাপটা খেলার জন্য আকিফ জাভেদ পুরোপুরি প্রস্তুত। কিছুদিন আগেই জাতীয় টি-টোয়েন্টি কাপে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ হাফিজকে আউট করেছিলেন জাভেদ।

তাহলে কী গতিতে শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে যাবেন আকিফ জাভেদ?

Related Post
You have to login first to comment this post or sign up.
NO COMMENT YET.